উত্তরা ক্রিসেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে, ১৭ লাখ টাকা জরিমানা

0
812
রাজধানীর উত্তরা ক্রিসেন্ট ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড কনসালটেশন সেন্টারে চিকিৎসকের অনুপস্থিতিতে সন্তান প্রসবের কারণে নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ করা হয়েছে।

এদিকে এই সেন্টারে মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট এবং তাদের দুটি ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ পাওয়ায় মোট ১৭ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি তপন চন্দ্র সাহা বুধবার জানান, নবজাতকের মৃত্যুর বিষয়ে একজন নারী থানায় অভিযোগ নিয়ে এসেছেন। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দক্ষিণখানের শাহনাজ জাহান নামের ওই নারী অভিযোগে বলেছেন, তার অন্তঃসত্ত্বা বোনকে গত মঙ্গলবার বিকালে একজন চিকিৎসকের অধীনে ক্রিসেন্ট ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড কনসালটেশন সেন্টারে ভর্তি করান। মধ্যরাতে প্রসব ব্যথা উঠার পর নার্সরাই তার প্রসব করান। সে সময় ডাক্তার ছিলেন না। প্রসবের বেশ পরে ডাক্তার আসেন।

“এছাড়া প্রসবের পর কিছু একটা পড়ার শব্দ পেয়েছেন তার বোন। কী পড়েছে, পুত্র না কন্যা সন্তান হয়েছে, কেমন আছে তার এসব প্রশ্নের কোনো জবাব দেয়নি নার্সরা। রাত ১২টায় প্রসব করলেও রাত ২টায় তাদের জানানো হয় মৃত সন্তান হয়েছে।

চিকিৎসক ও নার্সদের অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যু এবং তার বোনকে চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন শাহনাজ।

এদিকে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু জানান, রাতে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভযান চালিয়ে মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট পাওয়ায় ১০ লাখ টাকা এবং পাশে ক্রিসেন্টের দুটি ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ পাওয়ায় সাত লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

এর আগেও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়ে অনিয়ম পাওয়ায় জরিমানা করা হয়েছিল বলে জানান তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে