জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ২০০ রোগ হয়েছে আরও ভয়ংকর, কমেছে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা: গবেষণা

0
183

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ৫৮ শতাংশ রোগ আরও ভয়ংকর হয়ে উঠেছে বলে দাবি করা হয়েছে নতুন গবেষণায়।

ব্রিটিশ বিজ্ঞান সাময়িকী ‘নেচারে’ প্রকাশিত এক গবেষণায় ইউনিভার্সিটি অব হাওয়াই’র গবেষকরা এমন দাবিই করেছেন। তারা এই গবেষণা দেখেছেন গ্রিন হাউজ গ্যাসের কারণে জলবায়ুজনিত দশটি আপদ আরও ভয়াবহ রূপ নিয়েছে।

যার মধ্যে আছে তাপমাত্রা বৃদ্ধি, খরা, দাবদাহ, দাবানল, বন্যা, ঝড়, সামুদ্রিক উচ্চতা বৃদ্ধির মতোর আপদগুলো।

রোগ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক ৭০ হাজার পৃষ্ঠার বৈজ্ঞানিক নথি ঘেটে তারা জানতে পেরেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে অনেক রোগ বৃক্ষ-প্রাণী-মানব শরীরে হানা দিচ্ছে এবং এর তীব্রতাও স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকটা বেড়েছে।

৩৭৫ রোগের চরিত্র বিশ্লেষণে ২০১৮ সালেই দেখা গিয়েছিল এর মধ্যেই ২০১৮টি হয় জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে।

জলবায়ু পরিবর্তন ‘আপদ’ আরও কাছে টানছে

গবেষকরা দেখেছেন জলবায়ু পরিবর্তন রোগ জীবাণুর অনুকূল পরিবেশ তৈরি করে আপদকে আরও কাছে টেনে আনছে। তাপমাত্রা ও  আদ্রতা বৃদ্ধির ফলে মশা, কীটপতঙ্গ, মানুষের ও প্রাণীর শরীরের অভ্যন্তরে বাস করা পতঙ্গ; যারা ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া জনিত রোগ জীবাণু ছড়াতে সহায়ক, তাদের পরিমাণ বাড়ছে। ফলে ডেঙ্গু, প্লেগ ও ম্যালেরিয়ার মতো রোগের প্রকোপও বাড়ছে।

জলবায়ু পরিবর্তন ১০০০ বেশি রোগ জীবাণুর বিস্তারের সহায়ক ভূমিকা পালন করছে… জলবায়ু জনিত আপদও বাড়ছে বিশ্ব জুড়ে; এমন দাবিই করেছেন গবেষকরা।

বন্যা, ঝড়ের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে মশার বিস্তার ও প্রজনন বাড়ছে।  এভাবেই জলবায়ু পরিবর্তন মানুষকে আপদের আরও কাছে নিয়ে যাচ্ছে।

গবেষকরা বলছেন, দাবদাহের কারণে জলবাহিত রোগও বাড়ছে। ঝড়, বন্যা ও সমুদ্রপৃষ্টের উচ্চত বৃদ্ধির ফলে ছড়াচ্ছে নিউমোনিয়া, টাইফয়েড, হেপাটাইটিস। শ্বাসকষ্টজনিত ও চর্ম রোগের হারও বাড়ছে উদ্বেগজনকভাবে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হচ্ছে দুর্বল

রোগ জীবাণু নিজেদের আরও শক্তিশালী করে ফেলছে, এর পেছনে বড় ভূমিকা রাখছে আবহাওয়া পরিবর্তন। বিপরীতে মানুষের শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতাও কমছে, হয়ে পড়ছে আরও  দুর্বল।

গবেষণায় নেতৃত্ব দেওয়া ক্যামিলো মোরা বলেছেন, ‘করোনার ভয়াবহ মাত্রাই বলে দিচ্ছে গ্রিন হাউজ গ্যাস নিঃসরণের ফলে সত্যিই স্বাস্থ্য ঝুঁকি এতো ভয়াবহ পর্যায় পৌঁছেছে, সত্যিই এটা ছিল ভীতিকর।’

তিনি আরও বলেন, ‘আরও রোগ ও জীবাণুর সংক্রমণ আছে, যা আমাদের সত্যিই ভাবিয়ে তুলছে; আমরা জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে খাপ খাওয়াতে পারব তো? এটা গ্রিনহাউজ গ্যাস নির্গমন জরুরি ভিত্তিতে কমানোর তাগিদ দিচ্ছে।’

সূত্র: ইউরো নিউজ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে