টিকায় আগ্রহ কম গ্রামে নিবন্ধন বাড়ছে নগরে

0
704

করোনার টিকা নিয়ে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালানো হচ্ছে খুলনায়। এরই মধ্যে খুলনা নগরে টিকা দেওয়ার কাক্সিক্ষত লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত সিটি করপোরেশন এলাকায় ৪৮ হাজার ৫০০ জন টিকা নিয়েছেন। তবে সে তুলনায় গ্রামে টিকা নেওয়ার আগ্রহ কিছুটা কম। গতকাল পর্যন্ত নয়টি উপজেলার প্রতিটিতে গড়ে টিকা নিয়েছেন ৭ হাজার ৫৩১ জন।  খুলনার ডিপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো. সাইদুল ইসলাম জানান, নগরের মানুষ বেশি সচেতন হওয়ায় টিকা নেওয়ার হারও বেশি। তাদের শুরুতে প্রায় ৫০ হাজারের মতো করোনা টিকা সরবরাহ করা হয়েছিল। এরই মধ্যে প্রথম দফায় টিকা প্রদানে তাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়েছে। তারপরও আগ্রহী মানুষ টিকা নেওয়ার জন্য প্রতিদিন নিবন্ধন করছেন। ফলে সিটি করপোরেশন অতিরিক্ত ১৫ হাজার ডোজ টিকার চাহিদা দিয়েছে। এর মধ্যে বিভিন্ন উপজেলা থেকে এনে তাৎক্ষণিক ৫ হাজার ডোজ টিকা সরবরাহ করা হয়েছে। জানা যায়, খুলনায় প্রথম দফায় মোট ১ লাখ ৬৮ হাজার ডোজ করোনার টিকা পাঠানো হয়। এর মধ্যে টিকা নিতে নিবন্ধন করেছেন ১ লাখ ৪১ হাজার ৩৫৪ জন। টিকা দেওয়া হয়েছে ১ লাখ ১৬ হাজার ৪৯১ জনকে।

সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এ কে এম আবদুল্লাহ জানান, নগরের মধ্যে টিকা নিতে নিবন্ধন করেছেন ৫৮ হাজার ৫৬৫ জন। প্রতিদিনই নিবন্ধনের সংখ্যা বাড়ছে। এ কারণে নতুন করে টিকার চাহিদা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া জেলা সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য অনুযায়ী, নয়টি উপজেলায় টিকার নিবন্ধন করেছেন ৮২ হাজার ৪৩৫ জন। প্রতি উপজেলায় গড়ে নিবন্ধন করেছেন ৯ হাজার ১৩৯ জন। এর মধ্যে এ পর্যন্ত টিকা নিয়েছেন ৬৭ হাজার ৭৮৪ জন। এদিকে নগর ও গ্রামে উভয়ক্ষেত্রে টিকা গ্রহণে নারীর তুলনায় পুরুষের সংখ্যা বেশি। গত দুই দিনে খুলনায় পুরুষ টিকা নিয়েছেন ৪ হাজার ৫৭৩ জন ও নারী টিকা নিয়েছেন ৩ হাজার ৮১০ জন। বিশ্লেষকরা বলছেন, নারীদের মধ্যে রক্ষণশীলতা, অসচেতনতা, জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকাসহ নানা কারণে টিকা নিতে আগ্রহ কম দেখা গেছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে