ডায়রিয়া হলে কি ডিম খাওয়া যায়?

0
230

শীতকাল মানেই খাওয়াদাওয়ার ধুম। এ কারণে এই সময় পেট খারাপ বা ডায়রিয়া তো হতেই পারে। অনেকের মনেই প্রশ্ন থাকে, ডায়রিয়া হলে কি ডিম খাওয়া যায় বা ডায়েটে রাখা যায়?

ভারতীয় গণমাধ্যম এই সময়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী,নানা কারণে ডায়রিয়া হতে পারে। এই রোগে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পাতলা পায়খানা হয়ে থাকে। এছাড়া কারও কারও বমি ভাব বা বমি হয় । এই পরিস্থিতিতে সতর্ক হতে হবে ডায়েট নিয়ে। কারণ শরীর জটিল কোনও খাবার এই সময় গ্রহণ করতে পারে না।

পুষ্টিবিদদের মতে,ডিম প্রোটিনে দারুণ উৎস। এই প্রোটিন শরীর খুব সহজে গ্রহণ করে নেয়। তবে এটাও ঠিক,ডায়রিয়া হলে শরীর ডিম সহ্য না করতেও পারে। কারণ প্রোটিনকে ভাঙতে শরীরকে একটু বেশি পরিশ্রম করতে হয়। অনেক এনজাইম লাগে। এটা একটা জটিল প্রক্রিয়া। তাই ডায়রিয়া হলে প্রোটিন এড়িয়ে যেতে হয়। এক্ষেত্রে ডিম না খাওয়াই ভালো।

ডায়রিয়া হলে আরও যেসব খাবার খাওয়া ঠিক নয়-

১. যে কোনও ধরনের প্রোটিন এড়িয়ে যান। ডিম, মাছ, মাংস কিছুই প্রথমে খাবেন না। একটু সুস্থ হলে খেতে পারেন।
২.  বাইরের খাবার খাওয়া যাবে না
৩.   অশুদ্ধ পানি পান করবেন না
৪.   তেল, মসলা, ঝাল পেটকে উত্তেজিত করে তোলে। তাই এই খাবার খাওয়া যাবে না।
৫.  অ্যালকোহল বা ধূমপান থেকে এই সময়টায় দূরে থাকুন।

​কী খেতে পারেন?
ডায়রিয়া হলে স্বাভাবিক খাবার যেমন-  ভাত,ডাল,সবজির স্যুপ, আলু খেতে পারেন। এছাড়া হালকা খিচুড়ি করে খেতে পারেন। এই খাবারগুলি হজম করতে শরীরের তেমন একটা কষ্ট করতে হয় না। তাই এই খাবার সহজেই খেয়ে ফেলতে পারেন।

পুষ্টিবিদরা বলছেন, আসলে ডায়রিয়া হলে শরীরে পানির ঘাটতি হতে পারে। সেই পরিস্থিতিতে খেয়ে নিতে পারেন ডাবের পানি। এছাড়া স্যালাইন খেতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে