ত্বকের বয়স কমিয়ে রাখুন

0
487

বয়স শরীরের বাড়ে, না ত্বকেরএমন প্রশ্ন অবান্তর কিছু নয়। শরীরের বয়স খুব একটা না অথচ দেখলে বয়স্ক দেখায়। তাই বয়স না বাড়লেও, ত্বকের অযত্ন করলে বয়স কিন্তু দৌড়ে বাড়বে। সেজন্য প্রয়োজন ত্বকের নিয়মিত যত্ন নেওয়া। বয়সকে হাতের মুঠোয় রেখে রূপের আলোয় চমকে দেন অনেক রমনীরাই। রূপচর্চাই পারে ত্বকের বয়স কমিয়ে রাখতে। দীর্ঘদিন ত্বক টানটান রাখতে ট্রাই করুন এই ঘরোয়া ফেসপ্যাকগুলো।

স্কিন এজিং একেকজনের ক্ষেত্রে একেক রকম হয়। বয়সের কারণেই এমনটা সবসময় হবে তা কিন্তু নয়, হঠাৎ করে যদি কেউ খুব রোগা হয়ে যান, তাহলেও কিন্তু ত্বকে এই ধরণের সমস্যা দেখা দিতে পারে। শরীরের বয়স বাড়ার সাথে ত্বকেরও বয়স বাড়বে সেটাই স্বাভাবিক। এটা যেমন চিরন্তন সত্যি, তেমনি সঠিক সময়ে সঠিক যত্নআত্তি নিলে অনেকদিন অবধি ত্বকে তারুণ্য ধরে রাখা সম্ভব, এটাও দিবালোকের মতো সত্য।

বেসিক কেয়ারের পাশাপাশি ব্যবহার করুন বিশেষ কিছু স্কিন ফার্মিং ফেসপ্যাক ও মাস্ক, যা শুধু ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া আটকাতেই নয়, ত্বকে উজ্জ্বলতা আনতেও সাহায্য করবে। এগুলো ত্বকে রক্ত চলাচল বাড়ানোর পাশাপাশি ত্বকের কোষের দৃঢ়তাও বাড়ায়। বাড়িতে নিয়মিত ত্বকের পরিচর্চা করলে, ত্বক থাকবে যৌবনোচ্ছ্বল। বয়সও ৩০-এর কোঠাতেই আটকে থাকবে।

একটি পাত্রে ২-৩ চামচ শসার রস, একটা ডিমের সাদা অংশ, একটা ভিটামিন ই ক্যাপসুল এবং এক চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগান। ১০ থেকে ২০ মিনিট রেখে হালকা গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন। এরপর যে ফেসপ্যাকটি ভালো উপকার দেয় ত্বকের সেটা হলো, দুই চামচ মুলতানি মাটি, এক চামচ মধু এবং একটা ডিমের সাদা অংশ মিশিয়ে মুখে লাগাতে পারেন। ২০ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

বেসন এবং টকদই একসঙ্গে মিশিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করলে ত্বকে রক্ত চলাচাল বাড়ে। এতে ত্বক ভালো থাকে। আরেকটি ফেসপ্যাক লাগাতে পারেন, ২ চামচ মধু, আধা কাপ চালের আটা এবং ২ থেকে ৩ চামচ পাকা পেঁপেবাটা একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে ও গলায় লাগান। এরপর ১০ থেকে ২০ মিনিট রেখে ঠান্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে নিন।সবশেষে উপকারি প্যাকটি হলো, এক চামচ অ্যালোভেরার রস, এক চামচ মধু এবং এক চামচ মেয়োনিজ একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগাতে পারেন। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে