দালাল ধরতে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযান

0
688

বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সক্রিয় দালাল চক্রকে ধরতে অভিযান চালিয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ সময় তিন নারীসহ সাত দালালকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।
আজ সোমবার সকালে ডিবি পুলিশ এ অভিযান চালায়। দুপুরে বরিশাল জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আলী সুজা ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ওই সাতজনকে কারাদণ্ড প্রদান করেন। দণ্ডিত ব্যক্তিদের মধ্যে পাঁচজনকে এক মাস করে এবং অপর দুজনকে সাত দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পরে পুলিশের মাধ্যমে তাঁদের বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
এক মাসের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন ঝালকাঠীর রাজাপুর উপজেলার মিরাজ হাওলাদারের স্ত্রী আসমা বেগম (৩২), সদর উপজেলার হিজলতলা এলাকার মোসলেম হাওলাদারের মেয়ে তানজিলা আক্তার (২০), বরগুনার ইসলামপুর গ্রামের মহব্বত আলীর ছেলে বাবুল মিয়া (৪৫), বরিশাল নগরীর আমতলা এলাকার নূরুল হকের ছেলে সালাউদ্দীন নাদিম (৪০) ও তাজকাঠি এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩০)। আর সাত দিনের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা হলেন ঝালকাঠী জেলার বিশাইন খান গ্রামের মিরাজুল ইসলামের স্ত্রী সনিয়া আক্তার (২৪) ও একই জেলার সিদ্ধকাঠী গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে জহিরুল হক খান (৩৬)।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আলী সুজা বলেন, গ্রাম থেকে আসা নিরীহ মানুষদের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও বেসরকারি হাসপাতাল-ক্লিনিকে নিয়ে যান এই ব্যক্তিরা। বিনিময়ে ওই সব ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে কমিশন পেয়ে থাকেন তাঁরা। তাঁদের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ইতিপূর্বে আরও বেশ কয়েকজন দালালকে একইভাবে অভিযান চালিয়ে আটকের পর কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। জনস্বার্থে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

সূত্রঃ বাংলাদেশপ্রতিদি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে