দেশে দেশে আবার লকডাউন

0
697

বিশ্বজুড়ে আবার করোনার ছোবলে মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হচ্ছে। সংক্রমিত হচ্ছে মানুষ। সংক্রমণ ঠেকাতে দেশে দেশে শুরু হয়েছে লকডাউন। জরুরি অবস্থা জারি করেছে অনেক দেশ। ইংল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, সৌদি আরব, তানজানিয়া, পোল্যান্ড, ইউক্রেনসহ ইউরোপের অনেক দেশে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, ফ্রান্স, পোল্যান্ড এবং ইউক্রেনে লাখ লাখ মানুষের ওপর নতুন করে লকডাউন আরোপ করা হয়েছে। গত শনিবার থেকে পোল্যান্ড, প্যারিসসহ ফ্রান্সের কিছু অংশ এবং ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে নতুন করে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। সেখানকার বেশির ভাগ দোকানপাট বন্ধ রাখা হয়েছে। এ ছাড়া লোকজনকে বাড়ি  থেকেই কাজ করার আহ্বান জানানো হয়েছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য সূত্রে জানা যায়, গতকাল পর্যন্ত সারা বিশ্বে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১২ কোটি ৩৫ লাখ ৫৫ হাজার ৬০২ জন। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ২৭ লাখ ২৩ হাজার ৭৮০ জন।

ফ্রান্সে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় রাজধানী প্যারিস এবং উত্তরাঞ্চলের কিছু অংশে নতুন করে কড়াকড়ি আরোপ করেছে কর্তৃপক্ষ। কড়াকড়ির আওতায় প্যারিসে সব ধরনের অনাবশ্যক ব্যবসা বন্ধ রাখা হয়েছে। নতুন কড়াকড়িতেও আগের মতো নিয়ম-কানুন মেনে চলতে হচ্ছে।

বাড়ি থেকে বের হতে হলেও কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় কারণ দেখাতে হবে। অপ্রয়োজনে বাড়ির বাইরে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে না। পোল্যান্ডে জরুরি নয় এমন সব দোকানপাট, হোটেল, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ক্রীড়া ক্ষেত্রগুলো তিন সপ্তাহের জন্য বন্ধ থাকবে। স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, করোনার যুক্তরাজ্য ধরনটি খুবই সংক্রামক বলে লকডাউন দিতে হচ্ছে। জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী, মোট সংক্রমিত লোকের শতকরা ৬০ ভাগ এই নতুন ধরনের করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। জার্মানিতেও সংক্রমণ দ্রুত হারে বাড়ছে। চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল জরুরি পদক্ষেপ হিসেবে লকডাউন আরোপের কথা বলেছেন। বেলজিয়াম ও সুইজারল্যান্ডে করোনার বিধিনিষেধ শিথিল করার পরিকল্পনা বাতিল করা হয়েছে। স্পেনে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। অন্যদিকে ব্রিটেন, জার্মানি ও নেদারল্যান্ডসসহ একাধিক দেশে লকডাউনবিরোধী বিক্ষোভও হচ্ছে। ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান বলছে, এখন পর্যন্ত করোনায় সর্বোচ্চ সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। ব্রাজিলে সংক্রমণ ঠেকাতে রিও ডি জেনেরোর বিখ্যাত কোপাকাবানা সমুদ্রসৈকতে প্রবেশ বন্ধ করা হয়েছে। এ ছাড়া ভারতেও প্রতিদিন বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে