নেই চিকিৎসক, সংকট জনবলেও

0
742

পশ্চিমপূর্ব রেলের হাসপাতালগুলোতে সেবা পাচ্ছেন না কর্মকর্তাকর্মচারীরা

চিকিৎসক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ জনবল সংকটে ধুঁকছে রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চল ও পূর্বাঞ্চলের হাসপাতালগুলো। সম্প্রতি হাসপাতালগুলোতে প্রেষণে চিকিৎসক নিয়োগের বিষয়ে রেলওয়ে দুই জোনের মহাব্যবস্থাপকদের কাছে একাধিকবার চিঠি দিলেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেননি। ফলে জনবল, সরঞ্জাম সংকট নিয়ে চলছে এই হাতপাতালগুলো।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে রাজশাহী কেন্দ্রীয় হাসপাতালের চিফ মেডিকেল অফিসার ডা. সুজিত কুমার রায় জানান, পশ্চিমাঞ্চল রেলেওয়ের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক ও কর্মচারী সংকট আছে। ইচ্ছা থাকলেও হাসপাতালগুলোতে আসা রেলওয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চিকিৎসা দিতে পারছেন না। এ ছাড়া চিকিৎসা সরঞ্জামের অভাব তো আছেই। তিনি আরও জানান, রেলওয়ের পশ্চিম জোনে কর্মচারীদের চিকিৎসার জন্য ছয়টি হাসপাতাল ও সাতটি ডিসপেনসারি আছে। হাসপাতালগুলো হলো- রাজশাহী রেলওয়ে হাসপাতাল, পাকশী, সৈয়দপুর, লালমনিরহাট, পার্বতীপুর ও সান্তাহার। ডিসপেনসারিগুলো হলো- খুলনা, রাজশাহী, ঈশ্বরদী, বোনারপাড়া, সৈয়দপুর, কেলোকা ও তিস্তামোর ঘাটে। পশ্চিমাঞ্চলে রেলের হাসপাতালগুলোতে মঞ্জুরিকৃত ৮৩৬টি পদের বিপরীতে বর্তমানে লোকবল আছে ৪৪৪ জন। শূন্য পদ আছে ৩৯২ জনের।

পূর্বাঞ্চল রেলের প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. ইবনে সফি আবদুুল আহাদ বলেন, ‘বর্তমানে রেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চিকিৎসা দেওয়ার ক্ষেত্রে আমাদের সবচেয়ে বড় সংকট হলো পর্যাপ্ত চিকিৎসক না থাকা। রেলকর্মী রোগীদের শতভাগ সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে প্রেষণে কিছু সংখ্যক চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়ার জন্য কয়েক দফা মহাব্যবস্থাপকের মাধ্যমে রেলওয়ে পরিচালক (সংস্থাপন) বরাবর আমরা চিঠি দিয়েছি। চিকিৎসকদের শূন্যপদগুলো পূরণ করা গেলে রেল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সর্বোচ্চ সেবা প্রদান নিশ্চিত করা যাবে।

পূর্বাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক জাহাঙ্গীর হোসেন ও পশ্চিমাঞ্চল রেলের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ জানান, হাসপাতালগুলোর সমস্যার মধ্যেই তারা কাজ করছেন। রেলের সব বিভাগেই জনবল সংকট আছে। সম্প্রতি নতুন নিয়োগ বিধি জারি করা হয়েছে। নিয়োগ কার্যক্রম শুরু হলে এ সমস্যাগুলো কেটে যাবে। হাসপাতালগুলোতে প্রেষণে চিকিৎসক নিয়োগের বিষয়ে রেল ভবনে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তবে এখনো কোনো উত্তর পাওয়া যায়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে