বরিশালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের হামলায় ক্ষোভে ফুসছেন সিনিয়র ডাক্তাররা

0
817

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের হামলার ঘটনায় ক্ষোভে ফুসছেন সিনিয়র ডাক্তাররা। মঙ্গলবার সন্ধ্যার আগে এক চিকিৎসককে তার কক্ষে আটকে রেখে মারধরের অভিযোগ উঠেছে একই বিভাগের শিক্ষা-নবিশদের বিরুদ্ধে। এমন ঘটনায় বিস্মিত চিকিৎসকদের সংগঠন-বিএমএর নেতারাও।

এ ব্যাপারে তদন্ত করে ব্যবস্থার কথা জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক। শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের সহকারি রেজিস্টার ডাক্তার মাসুদ খানকে ফোন করা হয় মঙ্গলবার বিকেলে। নিজের কাজ সেরে সন্ধ্যায় তিনি নিজের অফিসে যান। সেখানে আগে থেকে অপেক্ষায় ছিলেন হাসপাতালের ৪৬ তম ব্যাচের ইন্টার্ন চিকিৎসক সজল পান্ডেসহ বেশ কয়েকজন।

অভিযোগ রয়েছে, ডাক্তার মাসুদ খানকে তার অফিস কক্ষে দরজা বন্ধ করে মারধর করেন শিক্ষানবিশরা। এই কাজে বাধা দিতে গেলে হেনস্তা হতে হয় আরো এক চিকিৎসককে। এসময় মাসুদ খানের চিৎকারে রোগীর স্বজনরা জড়ো হলে স্থান ত্যাগ করে হামলাকারীরা। এই ঘটনায় ক্ষোভ বিরাজ করছে স্টাফ চিকিৎসকদের মাঝে। অনেকে নিরাপত্তাহীনতার কথাও বলছেন। মেডিকেল এসোসিয়েশনের নেতারা বলছেন, এমন অপরাধ ক্ষমার অযোগ্য।
হামলার ঘটনা ছোট হলেও, এর সুদূরপ্রসারী প্রভাব রয়েছে। তাই তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান হাসপাতালের পরিচালক।

চলতি বছরের শুরুতে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের সঙ্গে ব্যাপক বিরোধ হয় শের-ই বাংলা মেডিকেলের ইন্টার্ন চিকিৎসকদের। সেসময় দুই কর্মচারীকে বেধড়ক পেটানোর অভিযোগ করে কর্মচারী ইউনিয়ন। এসব ঘটনার প্রভাব পড়েছে হাসপাতালটির চিকিৎসা সেবাতে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে