বাসায় করোনা রোগী থাকলে করণীয় কী

0
784
coronavirus

আপনার ঘরে যদি এক বা একাধিক কোভিড পজিটিভ রোগী থাকেন, তাহলে তাদের আইসোলেটেড থাকতে হবে; তথা পরিবারের অন্য সদস্যদের কাছ থেকে যথাযথ দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। ঘরে কোভিড পজিটিভ রোগী আছে এই যুক্তিতে অযথা করোনা টেস্ট করাবেন না। তবে আপনার যদি কোভিডের লক্ষণ দেখা দেয় সেক্ষেত্রে আপনাকেও টেস্ট করাতে হবে।

আপনার ঘরে কোভিড পজিটিভ রোগী থাকলে আপনার কোভিড রিপোর্ট থাকুক বা না থাকুক, পজিটিভ-নেগেটিভ যাই হোক, আপনাকেও ঘরে থাকতে হবে। বের হবেন না, অফিসে বা কাজে যাবেন না। কারণ টেস্ট নেগেটিভ বা লক্ষণহীন (asymptomatic) হলেও আপনি অন্যদের মধ্যে করোনা বিস্তারের সক্ষমতা রাখেন, যেহেতু আপনার ঘরে কোভিড পজিটিভ রোগী আছেন।

আপনার স্বজনের যেদিন লক্ষণ দেখা দিয়েছে অথবা যেদিন তার করোনা পজিটিভ হয়েছে-এর মধ্যে যেটি আগে-সেদিন থেকে সম্পূর্ণ ১০ দিন আপনাকে সমাজ থেকে এবং আপনার স্বজনকে পরিবারের অন্য সদস্য থেকে দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। হার্ভার্ডের ওয়েবসাইট অনুসারে ১০ দিন হলে চলে, তবে ১৪ দিন হলে আরও ভালো, তখন আর প্রায় কোনো ঝুঁকি থাকে না। উল্লেখ্য, রোগী যদি আইসিইউর প্রয়োজন হয়েছিল এমন তীব্র সংক্রমণে ভুগে থাকেন, তাহলে লক্ষণ দেখা দেওয়ার ২১ দিন পর্যন্ত করোনাভাইরাস ছড়াতে সক্ষম।

কোভিড টেস্ট পজিটিভ হলে রোগ সেরে যাওয়ার পরও দীর্ঘদিন (৪০ দিন বা এর বেশি দিন পর্যন্ত) টেস্ট পজিটিভ আসতে পারে। ভাইরাসের ভগ্নাংশের জন্য পরবর্তী সময়ে পজিটিভ হয়, আসল ভাইরাসের জন্য নয়। তাই দ্বিতীয়বার বা বারবার কোভিড টেস্ট করানোর কোনো প্রয়োজন নেই। তবে অফিশিয়াল বা ভ্রমণজনিত প্রয়োজনীয়তার প্রশ্ন থাকলে ভিন্ন ব্যাপার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে