মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত নামবে ঢাকায়

0
901

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে ঢাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত নামানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হলেও অনেকেই তা মানছেন না। এ কারণেই সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গতকাল মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা সাংবাদিকদের জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠকে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী এবং সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষ থেকে মন্ত্রিসভার সদস্যরা যুক্ত হন। মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানিয়েছেন, সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলোকে ইতিমধ্যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ একটু বেড়েও যাচ্ছে মনে হচ্ছে। সেজন্য আরেকটু সতর্কতা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।  ইতিমধ্যে আমরা গত রবিবার বলে দিয়েছি যাতে ঢাকাতেও বিভিন্ন জায়গায় মোবাইল কোর্ট বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আরেকটু সক্রিয় হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে ঢাকায় আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত দেখা যাবে। প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে গত জুলাই মাসের শেষ দিকে বাসার বাইরে সব জায়গায় সবার মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে সরকার। সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন জেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে জরিমানাও করা হচ্ছে। এদিকে মন্ত্রিসভার গতকালের বৈঠকে জাতীয় আর্থিক অন্তর্ভুক্তি কৌশলের বাংলা ও ইংরেজি সংস্করণের খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় প্রণীত জাতীয় পারমাণবিক ও তেজষ্ক্রিয়তা বিষয়ক জরুরি অবস্থায় প্রস্তুতি ও সাড়াদান পরিকল্পনার খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে