মৃত্যু ছাড়াল ৫ হাজার

0
757

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ১৫৫৭, মৃত্যু ২৮
দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ৬ মাস ১৪ দিনের মাথায় সরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেল ৫ হাজার। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ভাইরাসটির সংক্রমণে আরও ২৮ জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ হাজার ৭ জন।
এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ১৬৪টি নমুনা পরীক্ষায় আরও ১ হাজার ৫৫৭ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ১০ দশমিক ৯৯ শতাংশ। গত ৪ মের পর এটাই সর্বনিম্ন শনাক্তের হার। ওই দিনও শনাক্তের হার ছিল ১০ দশমিক ৯৯ শতাংশ। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গতকাল পর্যন্ত দেশে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৩ লাখ ৫২ হাজার ১৭৮ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ হাজার ৭৩ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৬০ হাজার ৭৯০ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার এখন ৭৪ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪২ শতাংশ। মৃত ও সুস্থ হওয়া রোগী বাদ দিয়ে দেশে এখন শনাক্ত মোট করোনা রোগী আছেন ৮৬ হাজার ৩৮১ জন। এর মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৩ হাজার ১১৭ জন। অন্যরা চিকিৎসা নিচ্ছেন বাড়িতে থেকে। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৮ জনের মধ্যে ১৭ জন পুরুষ ও ১১ জন নারী। প্রত্যেকেরই মৃত্যু হয়েছে হাসপাতালে। এর মধ্যে ষাটোর্ধ্ব ছিলেন ১৩ জন। ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৬ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৭ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ১ জন ও ১ জনের বয়স ছিল ১০ বছরের নিচে। মৃত ২৮ জনের মধ্যে ১৮ জন ঢাকা, ৪ জন চট্টগ্রাম, ৩ জন খুলনা এবং ১ জন করে রাজশাহী, সিলেট ও রংপুর বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন। বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়। ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদফতর। প্রায় এক মাস পর ২০ এপ্রিল মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়ায়। মৃতের সংখ্যা ৫০০ ছাড়ায় ২৫ মে, হাজার ছাড়ায় ১০ জুন, দেড় হাজার ছাড়ায় ২২ জুন, ২ হাজার ছাড়ায় ৫ জুলাই, আড়াই হাজার ছাড়ায় ১৭ জুলাই, ৩ হাজার ছাড়ায় ২৮ জুলাই, সাড়ে ৩ হাজার ছাড়ায় ১২ আগস্ট, ৪ হাজার ছাড়ায় ২৫ আগস্ট, সাড়ে ৪ হাজার ছাড়ায় ৭ সেপ্টেম্বর আর গতকাল ২২ সেপ্টেম্বর ছাড়িয়ে যায় ৫ হাজারের ঘর। এর মধ্যে ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়, যা এখন পর্যন্ত এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু।

সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে