শীতে ত্বক ও চুলের সুরক্ষায় খাবেন যেসব খাবার

0
758

এখন শীতকাল চলছে। এ সময় অনেকের ত্বক শুষ্ক, খসখসে হয়ে ফেটে যায়। চুলেও রুক্ষতা দেখা দেয়। এ সময় ত্বক ও চুলের আর্দ্রতা বজায় রাখতে বাড়তি কিছু যত্নের প্রয়োজন পড়ে।

ভিটামিন ই সমৃদ্ধ তেল ত্বক ও চুলের শুষ্কতা দূর করতে সাহায্য করে। তবে বাজারে পাওয়া বিভিন্ন তেলে রাসায়নিক অনেক উপাদান মেশানো থাকে। সেক্ষেত্রে ত্বক ও চুলে এই ভিটামিন পাওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো ভিটামিন ই সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ। ভিটামিন ই ফ্রি র‌্যাডিকেলের সঙ্গে লড়াই করে এবং ত্বকের শুষ্কতা, রোদে পোড়া দাগসহ, বয়সজনিত নানা ধরনের সমস্যা কমায়। পুষ্টিবিদদের মতে, পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন ই গ্রহণের ফলে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস প্রতিরোধ হয়, সেই সঙ্গে ত্বক ও চুলের স্বাস্থ্যও ভালো থাকে।

ভিটামিন ই সমৃদ্ধ যেসব খাবার খেলে ত্বক ও চুলের স্বাস্থ্য ভালো থাকে-

কাজুবাদাম : পুষ্টিবিদদের মতে, রাতভর ৫ টি বাদাম ভিজিয়ে রাখার পর সকালে খোসা ছাড়িয়ে খেলে ত্বকে সজীবতা বাড়ে। এছাড়া সকালের নাস্তায় সিরিয়ালের সাথে কিংবা এমনিতেও কাজুবাদাম খেতে পারেন। এটি ভিটামিন ই’য়ের দারুণ উৎস।

পালং শাক : পালং শাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন ই থাকে। শীতের এ শাকটি বিভিন্ন খাবার তৈরিতে ব্যবহার করা যায়। শীতে ত্বক ও চুল ভালো রাখতে নিয়মিত খাদ্যতালিকায় এ শাকটি রাখতে পারেন।

অ্যাভোকাডো :  সবুজ রঙের এই ফলটি অল্প মিষ্টিযুক্ত। পুষ্টিগুণের কারণে বাইরের দেশে এটি খুবই জনপ্রিয়। আজকাল দেশেও এ ফল পাওয়া যায়। অ্যাভোকাডোতে প্রচুর পরিমাণে মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকে যা শরীরের জন্য খুবই উপকারী। এছাড়া এটি ভিটামিন ই’য়েরও একটি ভালো উৎস।

সূর্যমুখীর বীজ : আকারে ছোট হলেও সূর্যমুখীর বীজে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন ই পাওয়া যায। হালকা নাস্তা হিসেবে এটি সকালে চায়ের সঙ্গে খেতে পারেন। এছাড়া ওটমিল, সিরিয়াল, প্যানকেকের সঙ্গে মিশিয়েও এটা খাওয়া যায়।

চীনাবাদাম : চীনাবাদাম খেতে পছন্দ করেন না, এমন মানুষ খুব কমই আছেন। এটি পুষ্টিগুণেও ভরপুর একটি খাবার। নিয়মিত চীনাবাদাম খেলে হৃদরোগ নিয়ন্ত্রণে থাকে। এছাড়া এটি স্মৃতিশক্তি বাড়াতে ও রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণেও সহায়তা করে। চীনাবাদাম ভিটামিন ই এরও দারুন একটি উৎস। বিভিন্ন খাবারের সঙ্গে কিংবা এমনিতেও এই বাদামটি নিয়মিত খেলে ত্বক ও চুল ভালো থাকে।  সূত্র : এনডিটিভি

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে