সুঅভ্যাসে সুস্থ ত্বক

0
161
শুষ্ক ত্বকের যত্ন

ত্বক পরিষ্কার রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এবং সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরে ত্বক পরিষ্কার করা জরুরি। এতে ত্বক ভালোমতো শ্বাস নিতে পারে। ত্বকের ময়লা দূর হয়, লোমকূপ পরিষ্কার রাখে; ফলে ব্রণ ও একনির সমস্যা হ্রাস পায়।

সানস্ক্রিন ব্যবহার

ত্বকের যতে সানব্লক ব্যবহারের বিকল্প নেই। এটা সূর্যের ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশ্মির প্রভাব থেকে ত্বককে সুরক্ষিত রাখে। তাই সব সময়ই বাইরে যাওয়ার সময় সানব্লক ব্যবহার করা প্রয়োজন। এতে ত্বকের ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকিও কমে।

সুষম খাদ্যাভ্যাস

সুষম খাদ্যাভ্যাস দেহে সঠিক ভিটামিন, খনিজ, প্রোটিন ও পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে। এতে শরীর ও মন ভালো থাকে। ফলে চেহারা দেখতে চনমনে ও উজ্জ্বল লাগে।

ধূমপান না করা

ধূমপান ত্বকের প্রধান শত্রু। ধূমপানের ফলে ত্বকে অক্সিজেন ও পুষ্টি সরবারহ কমে যায়। ফলে ত্বক দেখতে ফ্যাকাশে লাগে। ধূমপানের কারণে ত্বকে দ্রুত বলিরেখার পড়ে। ধূমপান ত্বককে শুষ্ক করে ফেলে। দেখতে নিস্তেজ ও অস্বাস্থ্যকর লাগে।

সঠিক ঘুম চক্র

স্বল্প ঘুম ও ঘুমের অভাব ত্বককে মলিন ও নির্জীব দেখায়। ঘুমের অভাবে মুখের চারপাশে রক্ত চলাচল কমে যায়। স্বাস্থ্যকর ও উজ্জ্বল ত্বকের জন্য দৈনিক কমপক্ষে সাত-আট ঘণ্টা ঘুমানো উচিত।

পর্যাপ্ত পানি পান

পর্যাপ্ত পানির অভাবে ত্বক স্থিতিস্থাপকতা হারায়। ফলে রুক্ষ হয়ে যায়। পর্যাপ্ত পানি পানে ত্বক ভালো থাকে। এতে রক্ত প্রবাহ বাড়ে। ত্বকের আর্দ্রতা রক্ষা ও চেহারার লাবণ্যতা বাড়ে।

 

তথ্যসূত্র : স্কিন কেয়ার ভিলা

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে