স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষামূলক খোলা যেতে পারে

0
802

অধ্যাপক . কে আজাদ চৌধুরী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)-এর সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী বলেছেন, করোনাভাইরাসের কারণে অচলাবস্থা বিরাজ করছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয়। এভাবে প্রায় এক বছর চলে গেল। এ অচলাবস্থা উত্তরণের ব্যবস্থা করতে হবে। কারণ কবে করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে তা অনিশ্চিত। তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষামূলকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা যেতে পারে। গতকাল প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

এই শিক্ষাবিদ আরও বলেন, বর্তমানে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি লক্ষ্য করছি আমরা। মৃত্যুহারও বেড়েছে। হয়তো নতুন বছরে করোনার ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে। ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে এর ফল পেতে বেশ কিছু সময়ের প্রয়োজন। কেউ কেউ বলছেন আগামী দুই বছর করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করতে হতে পারে। তাই স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে সীমিত পরিসরে পরীক্ষামূলকভাবে হলেও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেওয়া উচিত।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের আবাসিক হলে তুলে দিতে হবে। এ ক্ষেত্রে গণরুম ও গাদাগাদি করে থাকা বন্ধ করতে হবে। এ বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নিশ্চিত করতে হবে। সম্ভব হলে রুমে যত জনের আসন রয়েছে তার থেকেও শিক্ষার্থী সংখ্যা কমিয়ে আনতে হবে।

এ কে আজাদ চৌধুরী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় খুলে সীমিত পরিসরে ক্লাস ও পরীক্ষার ব্যবস্থাও করা যেতে পারে। রুটিনভিত্তিক, বিষয়ভিত্তিক, পর্যায়ভিত্তিক, গ্রুপভিত্তিক করে এটি করা যেতে পারে। তিনি উল্লেখ করেন, কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষার আয়োজন করেছে। এটি ভালো সিদ্ধান্ত। সবাই দায়িত্বশীল আচরণ করলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের ক্লাসেও আনা যেতে পারে। এ ক্ষেত্রে সবাইকে দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে